আকাশ জোড়া কনক থালি

       জ্বালায় আলোক প্রভাকরে,

হাওয়ায় দোলে কাশের ডালি

        শিশির বিন্দু শরৎ ভোরে।

শিউলি শালুক কমল পলাশ

            ভাসছে সাদা মেঘের ভেলা,

প্রকৃতিরাণীর নৌকা বিলাস

            আলো আঁধারীর জাদুর খেলা।

শুনছি মায়ের পদধ্বনি

           দেবীর রাঙা চরণ রেণু,

মাখিয়ে নেবে হৃদয় খানি

            বাজবে সেথায় মধুর বেণু।

আসছো মাগো বছর ঘুরে

       আবার তোমার বাপের বাড়ি,

আনন্দে তাই মনটা ভরে,

        যখন তোমায় বরণ করি।

কিন্তু যারা জনম দুখী

           কিংবা যারা ভাগ্যহত,

কেমনে মাগো হবে সুখী

          তোমার সেবায় থাকবে রত !

জ্বালাও প্রদীপ তাদের মনে

            মিটাও মাগো ক্ষুধার জ্বালা,

আজকে তোমার পূজার ক্ষণে

            প্রসাদ সুধায় ভরুক ডালা।

আগমনীর পুণ্য লগণ

             শুভবোধের হোক উদয়,

মায়ের কাছে এই কর পণ

                হিংসা যতেক করবে জয়।

অপরাজিতা মায়ের পদে

          নীলোৎপলের অন্জলি,

অধর্ম যা আছে হৃদে

           দাও সকলি আজকে বলি।

সত্য যা তা চিরস্থায়ী

        নাইকো সেথায় কোনোই কালি,

ধর্ম সদা যুদ্ধে জয়ী

            মায়ের পূজার আসল ডালি।

অকিন্চনে দিলে শরণ

         দুখীর মুখে ফুটবে হাসি,

সফল হবে মায়ের বরণ

         সবার মনে বাজলে বাঁশি।

Print Friendly, PDF & Email
0 0 vote
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments