কৃকলাস জন্তুরা তখনও রাতের আকাশে,
বিদ্রোহের ভেঙচি কাটে নিওনের আলো ,
খোলামেলা বাদুরেরা ভিড় জমায় খিটখিটে খবিশ এর দলে,
নিশিদ্ধ চাটুকারেরা ডানা মেলে বিস্তার পা্‌য় ,
পেখমের শোভার মতো নতুন আশার আলোকবিন্দুরা,
ঝলকিয়ে মারা যায় ।।

রাঙা মাটিতে জমা রক্তের দাগে,
বাইরের শৌর্য , বিনিদ্র রাত জেগে ঘুমিয়ে পড়ে ।
স্বপ্নে শেষ বেলার নিশাচরের অঙ্গুলিহেলনে ,
অ্যাডাম ত্ত ঈভের অস্তিমজ্জায় বাঁচে দ্রৌপদীর লজ্জা ,
ক্ষয়িষ্ণু অভিশ৷পে ।।

তারপর একদিন আসে ,
শান্তির ভিক্ষুকেরা যেদিন রাস্তায় হাঁটে ,
যু্দ্ধের কাপালিকরা গর্জে ওঠে ,
স্থবির বৃদ্ধের মৃ্ত্যুকে আহ্বান জানানোর মতো ক্ষীন শব্দে ।
পেষনের যাতনায় দলিত ঘাসেরা ,
নরকের ভিজে মাটিতে মাথা কুটে মড়ে।।

তখনত্ত,
বিষ৷দ সূর্যের আশায় প্রহর গোনে মিশরের ফ্যারাও ,
রূদ্ধশ্বাস নিদ্রার আভারা মিশে যায় ,
তপশিলিদের রক্তে ।
বিভোর মানুষেরা জ্বলন্ত হৃৎপিন্ড হাতে ছোটে ,
ছুটে চলে দিশাহীন অন্ধ মাছির মতো ,
আর ঘুরে মড়ে আজগুবি কেন্দ্রে ।।

 

Print Friendly, PDF & Email
0 0 vote
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments