প্রলোয়ল্লাসে মেতেছে ঝঞ্ঝা করেছেসর্বহারা’,

কুহেলিকাসম  কুজ্ঝটিকায় রিক্ত জীবনধারা।

পথহারাসবে খুঁজে খুঁজে ফেরে সঠিকপথের দিশা’,

চারিদিকে যেন বাজেরণভেরী’ , কি ঘোর অমানিশা !

কমল কাঁটা বিদ্ধ ধরণীদ্বীপান্তরের বন্দিনী’,

নীরবে সহেন বিশ্ববাসীরদারিদ্র্য’, ‘কোরবানি

উদ্দামএই শত্রুর হেরি শক্তিটা নয় অল্প,

এইচৈতি হাওয়া বিতাড়নে চাইঅভিযান’ ‘সংকল্প

আজচাঁদনী রাতেঅবেলার ডাকেদাও এবে সবে সাড়া,

যেন বিভাষিত হয় অপরূপ রূপে আগামীসন্ধ্যাতারা

বিষের বাঁশি ফুৎকারে বুঝি লণ্ডভণ্ড বিশ্ব,

খোকার সাধঅপূরণে হায় মাতাপিতা দোঁহে নি:স্ব।

দুর্দম অরি অদৃশ্যচারী-‘কাণ্ডারী হুঁশিয়ার’,

আপন পিয়াসীসর্বগ্রাসীহুঙ্কারে সংহার।

এসো হেমানুষ’ ‘দূরের বন্ধু’ ‘পিছু ডাকদূরে ঠেলে,

আজ সৃষ্টি সুখের উল্লাসেগাওঝোড়ো গানসবে মিলে।

এইদু:শাসনের রক্ত পানে সব্যসাচীর দল,

ধূমকেতুসম শত্রুর করো বিনাশ যতেক ছল।

হে মানবএই দুর্ভোগ তব কৃতকর্মেরইপাপ’,

রক্তাম্বরধারিনী মা’-তাঁর রোষায়িত অভিশাপ।

নিজেদের বুঝি ভেবেছিলেমোরা ঝন্ঝার মতো উদ্দাম’,

হয়েছিলে তাইবিদ্রোহী’-আজ তারই হেন পরিণাম।

নারীরে দাওনি সম্মান নর উদ্ধত শিরোমণি,

পূজারিণীসনে করেছ ব্যাঙ্গভুলেছ সে দেবী জননী।

বসুন্ধরারফরিয়াদতাই তোমাদের প্রতি মানব,

হারায়েছ তাঁরআশীর্বাদ’-মর্ত্যবাসী হে দানব !

এখনো সময় আছে বন্ধুরাগাও গানআগমনী’,

আনন্দময়ীর আগমনেকর শোধন হৃদয়খানি।

তাঁর সনে করোউৎসর্গসেই কনক হৃদির খনি,

প্রভাতীআলোকে আলোকিত হোক ঊষশীরজাগরণী

বিদায় বেলায়পাঠকের করে দিলেম কাজীর বেণু,

কবিরগানের আড়ালেসাজানো মোর ছন্দের রেণু।

Print Friendly, PDF & Email
0 0 vote
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments