আমি পথিক নই, তবে একলা

যার গায়ে অনেক আঁচড় লেগেছে

একের পর এক সকলে অভিশাপের স্রোত ঢেলে দিয়েছে

আমি আজ কলঙ্কিত অনেক নামে

আমি তো পাষাণ হতে চাইনি

তা আর কে বা চায়!

বুঝিয়েছি অনেকবার, কিন্তু শোনেনি

আমার আঁচলে সকলের স্থান

আমি তো ভেদ-অভেদ করি না

সকলে তবুও আমায় লাঞ্ছনা দেয়

আমি কি করতে পারি!

কেও বোঝে না, আমি তারি এক খেলাঘর

যেখানে অবিরত বিশ্রাম,

গাতিশিলাতার চরম অবসান যার নিয়ম

আমি দেখেছি, সকলের আসা-যাওয়া

কতজন এভাবে গেছে

কিন্তু আমি পারিনি

মাঝে মাঝে মনে হয়েছে প্রশ্ন করি

কিন্তু করিনি,

কারণ, উত্তরটা আমার জানা

কর্মস্থলে আমরা সবাই শৃঙ্খলাবদ্ধ

একের পর এক এভাবেই অবসানের প্রতীক্ষায়

দীর্ঘদিন কেটেছে —

জানি না কখন আমারও ডাক আসবে

আমি চিন্তিত নই, কিন্তু অপেক্ষারত

আদও কি আমার সময় আসবে?

নাকি এভাবেই কালের পর কাল

চরম বাস্তবতাকে আলিঙ্গন দিতে হবে

জানি না!

বোধহয় নিয়তি মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে

বিশ্রামের ঝুলিতে আমার কোন স্থান নেই

আর তাই যদি হয়,

হতাশ হব না।

আমার পরিচয়ে কঠোর অস্তিত্ববাদকে স্বাগত জানাব

তা কেন জান? কারণ—

আমি কলঙ্কিত সেই,

শ্বশান ।।

~ শ্বশান ~

 

Print Friendly

LEAVE A REPLY

*